নিখোঁজের পাঁচদিন পর মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ বুড়িগঙ্গা নদী থেকে উদ্ধার

আরো পড়ুন

অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীর গাবতলী এলাকায় তুরাগ নদীতে নিখোঁজের পাঁচদিন পর নারায়ণগঞ্জের বুড়িগঙ্গা নদীতে ভেসে উঠল মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ। ২৩ জুলাই শুক্রবার বিকালে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় মেরি এন্ডারসনের কাছে বুড়িগঙ্গা নদী থেকে লাশটি উদ্ধার করে পাগলা নৌপুলিশ।

লাশ উদ্ধার ছাত্রের ফেরদাউসুর রহমান (১৫)। সে নৌবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেওয়ান মো. নজরুল ইসলামের ছেলে। সে বাবা-মায়ের ৫ ছেলের মধ্যে সবার ছোট। স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় লেখাপড়া করত। বাবা-মায়ের সঙ্গে মিরপুর-১৩ এর সেনপাড়া এলাকায় থাকত।

তার বড় ভাই নৌবাহিনীর সদস্য দেওয়ান আজমীর জানান, ফেরদাউসুর রহমানকে তার বন্ধু ইকরাম গাববতলী হাটে গরু দেখার কথা বলে ঈদের তিন দিন আগে ১৯ জুলাই দুপুরে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর তার আরও বেশ কয়েকজন বন্ধু মিলে তাকে গাবতলী হাটে না নিয়ে দারুসসালাম থানাধীন গাবতলী এলাকায় তুরাগনদীতে গোসল করতে যায়। সেখানে নিয়ে ফেরদাউসকে পানিতে চুবিয়ে তার বন্ধুরা হত্যা করে লাশ নদীতেই রেখে পালিয়ে যায়। পরে জানতে পেরে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও কোনো সন্ধান পাইনি। আজ খবর পেয়ে ফতুল্লার পাগলা নৌপুলিশ ফাঁড়িতে এসে ফেরদাউসুর রহমানের লাশ শনাক্ত করেছি। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

লাশ উদ্ধারকারী ফতুল্লার পাগলা নৌপুলিশ ফাঁড়ির এসআই জমসেদ আলী জানান, লাশটি ফতুল্লার মেরি এন্ডারসনের কাছে বুড়িগঙ্গা নদীর দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ এলাকার পানগাঁও থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। অতিরিক্ত পচনের কারণে মরদেহে কোনো আঘাতের চিহ্ন বোঝা যায়নি। এ বিষয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় পুলিশের পক্ষ থেকে একটি অপমৃত্যুর মামলা করা হয়েছে। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি রাজধানীর মিডফোর্ড হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বিজ্ঞাপনspot_img

বিজ্ঞাপন

spot_img

জনপ্রিয় খবর